আদি ভাব লালন চর্চাকেন্দ্রে দুইদিন ব্যাপী লালন সংস্কৃতিক উৎসব সমাপ্ত

ভয়েস রিপোর্ট ঃ
‘ভবে মানুষ গুরু নিষ্ঠা যার, সর্ব সাধন সিদ্ধ তার’-এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ফরিদপুরে অনুষ্ঠিত দুই দিনব্যাপী লালন  সংস্কৃতিক উৎসব শেষ হয়েছে। শহরের দক্ষিণ টেপাখোলা আদি ভাব লালন চর্চা কেন্দ্রে গত বৃহস্পতি ও শুক্রবার দুদিব্যাপী এ উৎসবের আয়োজন করা হয়।  আদি ভাব লালন চর্চা কেন্দ্রের চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আযোজন করা হয়।
গত বৃহস্পতিবার  সন্ধ্যা ৭টার দিকে সাধু সংঘের অধিবাস এর মধ্যে দিয়ে দুদিনব্যাপী এ উৎসবের আনুষ্ঠানিক সূচনা হয়। উৎসবের অন্যান্য আয়োজনের মধ্যে ছিল ‘আত্ম দর্শন ও মানব প্রেম’ বিষয়ে আলোচনা, লালন ভাব সংগীত পরিবেশন এবং সাধু সেবা।
গত শুক্রবার রাতে আদি ভাব লালর চর্চা কেন্দ্রের উপদেষ্টা মো. আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন অধ্যাপক এম এ আজিজ, অধ্যাপক সুশান্ত কুমার বিশ্বাস, কালিখোলা মন্দির কমিটির সভাপতি তাপস কুমার সাহা, ঈশান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুন্নাহার, সাংবাদিক পান্না বালা,ফরিদপুর শহর  ৬নং  ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ইকবাল হোসেন ফয়ছাল,সমাজসেবক সংস্কৃতিক কর্মী মহিউদ্দিন আহমেদ মুরাদ প্রমুখ।বক্তারা বলেন, সারাবিশ্বে আজ মৌলবাদ, ধর্মান্ধতা, সাম্প্রদায়িকতা, বর্ণবাদ ও জাতিগত হানাহানি বেড়ে যাচ্ছে। আজ ধর্মের নামে, বর্ণের নামে, সম্প্রদায়ের নামে, জাতির নামে মানুষে মানুষে  বিভেদ সৃষ্টি করা হচ্ছে। এই দুঃসময়ে লালনের বাণী ও আদর্শ আমাদের রক্ষা করতে পারে। তাই আজ আমাদের লালনের আদর্শ ও দর্শন হৃদয়ের গভীরে ধারণ ও লালন করতে হবে, পাশাপাশি এর মূল সূর সমাজেরপ্রত্যেক স্তরে ছড়িয়ে দিতে হবে।দুই দিনের এ উৎসবে বাউল শিল্পীদের মধ্যে সংগীত পরিবেশন করেন ফকির নিজাম উদ্দিন শাই ডলার , মোহনী সরকার, নারায়ণ সরকার, চ্যানেল আই এর বাউল শিল্পী নাজমুল হাসান প্রভাত, ফকির ইমান আলী শাহ্, ফকির সোহরাব শাহ্, নরোত্তম সাধু, সেকেন সাধু, রাজু ফকির, সুইম বাউল এবং শিশু শিল্পী তিন বোন লিমা, মিনা ও মীরা।
আদি ভাব লালন চর্চা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বাউল রূপক সাহা বলেন, মরমী সাধক ফকির লালন শাহ্ এর স্মরণে ২০১৩ সালে গঠন করা হয় আদি ভাব লালর চর্চা কেন্দ্রের। জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে এটি একটি মানব কল্যাণমুখী সেবা সংঘ। মানুষে মানুষে ভেদা ভেদ দূর কারই আমাদের লক্ষ্য ও ব্রত।

Leave a Reply