নগরকান্দায় যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগ

বোরহানুজ্জামান আনিস,নগরকান্দা থেকে ঃ
ফরিদপুরের নগরকান্দায় যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নগরকান্দা উপজেলার বড়কাজুলী গ্রামের আলমগীর শেখের স্ত্রী হালিমা বেগমকে (২২) গত বুধবার সকালে আহত অবস্থায় নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। হালিমা নগরকান্দা উপজেলার কোদালিয়া শহীদনগর ইউনিয়নের ছাগলদী গ্রামের সত্তার মাতুব্বরের মেয়ে।
হালিমা জানায়, প্রায় ৪ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে স্বামী আলমগীর শেখ ও শ্বশুর বাড়ির লোকেরা যৌতুকের জন্য বিভিন্ন সময় হালিমাকে চাপ দিতে থাকে। টাকা দিতে অস্বীকার করলে শারীরিক নির্যাতন শুরু করে। বাধ্য হয়ে মাঝে মধ্যে বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে স্বামীকে দেয়। গত বুধবার সকালে বাবার বাড়ি থেকে আরো টাকা এনে দিতে বললে, রাজি না হওয়ায় হালিমাকে পিটিয়ে আহত করে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকেরা।
এ ব্যাপারে মোবাইল ফোনে আলমগীর শেখের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘বিয়ের সময় বা বিয়ের পরে কোনো সময়ই শ্বশুর বাড়ি থেকে কখনো যৌতুক হিসেবে কোনো টাকা-পয়সা আনিনি। আমার স্ত্রীকে আমি বা আমার বাড়ির কেউ কখনো নির্যাতন করিনাই। তবে দীর্ঘদিন ধরে আমার একটি রোগের কারনে আমার সাথে স্ত্রীর দাম্পত্য কলহ বা মনোমালিন্য চলছে। আমি ব্যবসার কাজে ঢাকায় থাকি। ১০/১২ দিন ধরে আমার স্ত্রী তার বাবার বাড়িতে গেছে। তাই তাকে পারপিট করার প্রশ্নই উঠে না। সম্ভাবত এখন আমার সাথে সংসার না করার জন্য এবং আমার থেকে টাকা আদায় করার কৌশল হিসেবে যৌতুক ও নির্যাতনের নাটক সাজিয়েছে।
হালিমা’র ভাই জামাল মাতুব্বর জানান , ‘এ ব্যাপারে যৌতুক ও নারী নির্যাতন আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply