ফরিদপুরের চারটি আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৪০ জন ॥ VOICE OF FARIDPUR

 

মাহবুব পিয়াল,ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ॥
ফরিদপুরের চারটি আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ৪০ জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশী দিয়েছে ফরিদপুর-৪ আসনে ১৩জন, এরপর ফরিদপুর-৩ আসনে ১১, ফরিদপুর-১ আসনে ৯ এবং ফরিদপুর-২ আসনে ৭জন।

বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনা ও স্বতস্ফূর্ত ভাবাগেবের মধ্যে দিয়ে বুধবার ফরিদপুরের চারটি আসনে আ.লীগ বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীসহ স্বতন্ত্র প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এ মনোনয়ন জমা দেওয়া উপলক্ষে জেলা রিটানিং কর্মকর্তার কার্যালয় ও বিভিন্ন উপজেলার অবস্থিত সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়া হয়। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর প্রার্থীদের মুখে মিষ্টি তুলে দেন সমর্থকরা। পরে সমর্থকদের মাঝেও মিষ্টি বিতরণ করা হয়।
ফরিদপুর-১
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ফরিদপুর-১ আসনে (বোয়ালমারী-মধুখালী-আলফাডাঙ্গা) উৎসব মুখর পরিবেশে আ.লীগ ও বিএনপি প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এ আসন থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৯জন। বুধবার (২৮.১১.১৮) মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন থাকায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাকির হোসেনের কার্যালয়ে আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী মনজুর হোসেন, বিএনপির শাহ মো. আবু জাফর ও খন্দকার নাসিরুল ইসলাম দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এ আসনে বোয়ালমারী উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মো. লিটন মৃধা ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা উম্মে সালমা তানজিয়ার নিকট মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের প্রার্থী মো. ওয়ালিউর রহমান রাসেল, জাসদের হারুণ অর রশিদ, বাংলাদেশ পিপলস পার্টির মো. জাকারিয়া, বিএনএফ এর আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মোছা কামরুন্নাহার।

ফরিদপুর-২
ফরিদপুর-২ আসনটি সালথা ও নগরকান্দা উপজেলা এবং সদরপুরের কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। এ আসনে ৭ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে আ.লীগের প্রাথী আ.লীগ প্রার্থী সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, বিএনপির প্রার্থী শামা ওবায়েদ ও শহীদুল ইসলাম বাবুল, জাকের পার্টির মোস্তফা আমীর ফয়সাল, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কে এম সরোয়ার হোসেন খান, সিপিবি হাফিজুর রহমান হাফিজ, জাতীয় পার্টি (মঞ্জু) জয়নাল আবেদীন বকুল ।

ফরিদপুর-৩
ফরিদপুর সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত ফরিদপুর-৩ সংসদীয় আসন। এ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ১১জন। জেলা রিটানিং কর্মকর্তা উম্মে সালমা তানজিয়ার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আ.লীগের প্রার্থী স্থানীয় সরকার মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, বিএনপির প্রার্থী সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ ও তার মেয়ে নায়বা ইউসুফ, সিপিবির রফিকুজ্জামান মিয়া, জাতীয় পার্টির মো. ইয়াহিয়া, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন এম এম নুরুল ইসলাম, স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফ খান, মো. রুহুল আমিন তালুকদার, মো. ওবায়দুর রহমান, মো. বনি আমিন ও নিজাম আলী।

ফরিদপুর-৪
ভাঙ্গা ও চরভদ্রাসন উপজেলা এবং কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন ব্যাতিত সদরপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত ফরিদপুর-৪ আসনটি। এ আসনে ১৩ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। এরা হলেন আ.লীগের কাজী জাফর উল্লাহ, বিএনপির খন্দকার সেলিম ও শাহরীয়ার ইসলাম শায়লা, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের আব্দুল হামিদ, সিপিবির আতাউর রহমান কালু, জাকের পার্টির মসিউর রহমান যাদু মিয়া ও স্বতন্ত্র হিসেবে বর্তমান সাংসদ মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী, কাজী হেদায়েতউল্লাহ সাকলাইন, সদরপুরের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কাজী জাফর, ঢেউখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক শাহ মো. আবুল কালাম আজাদ, ফিরোজ কবির চৌধুরী ও আব্দুর লতিফ মিয়া, এনামুল হক।

Leave a Reply