ফরিদপুরে করোনভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা দেড় হাজার ছাড়িয়েছে

মাহবুব পিয়াল,ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ॥ ফরিদপুর নতুন শনাক্ত ১০৮ জন ধরে এ জেলার গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াচ্ছে ১ হাজার ৫৭৬জন গত বৃহস্পতিবার রাতে ফরিদপুর ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে স্থাপিত করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব সুত্রে এ খবর জানা গেছে।
ফরিদপুর নতুন শনাক্তের মধ্যে চিকিৎসক আছেন তিন জন, স্বাস্থ্য কর্মী আছেন দুইজন, পুলিশ সদস্য আছেন ছয় জন, বিচারিক হাকিম আদালতের পাঁচজন রয়েছেন। এছাড়া পল্লি উন্নয়ন বোর্ডের একজন কর্মকর্তাও রয়েছেন।
ফরিদপুরে নতুন করে যে ১০৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে ফরিদপুর সদরে ৭৮ জন, সদরপুরে ১১ জন, বোয়ালমারীতে ৯ জন, মধুখালীতে ৩ জন এবং চরভদ্রাসন ও আলফাডাঙ্গায় ২ জন করে। এর মধ্যে নারী ২৫ জন এবং পুরুষ ৮৩ জন।
ফরিদপুরে মোট শনাক্ত ১ হাজার ৫৭৬ জন জনের মধ্যে ফরিদপুর সদরে ৬১১ জন, ভাঙ্গায় ২৮৭ জন, বোয়ালমারীতে ২২৮ জন, সদরপুরে ১১৩ জন, নগরকান্দায় ৯৬ জন, চরভদ্রাসন ৮১, সালথায় ৫৮ জন, আলফাডাঙ্গায় ৫৫ জন এবং মধুখালীতে ৪৭ জন রয়েছেন।
ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থাপিত করোনা শনাক্তকরণ ল্যাবে গত বৃহস্পতিবার ৫৬৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৪০ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ফরিদপুরে তিনটি ফলোআপসহ ১১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। নতুন শনাক্ত হয়েছে ১০৮ জনের। এছাড়া গোপালগঞ্জে ২৫, মাদারীপুরে ৩ এবং সাতক্ষীরার ১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।
ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, নতুন শনাক্ত হওয়া রোগীর সাথে পুলিশের পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখা হয়েছে। ওষুধ ও খাদ্য সামগ্রীর প্রয়োজন হলে জানা মাত্রই আক্রান্তের বাড়িতে পৌঁছে দিচ্ছে পুলিশ।
ফরিদপুরের সিভিল সার্জন মো. ছিদ্দীকুর রহমান বলেন, ফরিদপুরে নতুন করে তিন জন চিকিৎসক, ছয়জন পুলিশ সদস্য এবং বিচার বিভাগের চারজন সদস্যর করোনা শনাক্ত হয়েছে। তিনি বলেন, সব রোগীদের সাথে যোগাযোগ রাখছে স্বাস্থ্য কর্মীরা। কারও সাথে যদি যোগাযোগ করা সম্ভব না হয় তবে সেটা হচ্ছে ঠিকানা সঠিক না থাকা কিংবা মোবাইল নম্বর ভুল থাকার কারনে।

Leave a Reply