ফরিদপুরে করোনা পরিস্থিতির চরম অবনতি ॥ ২৪ ঘন্টায় সর্বোচ্চ ১০২ জনের শনাক্ত

মাহবুব পিয়াল,ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ॥ ফরিদপুরে একদিনে সর্বোচ্চ ১০২ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আজ মঙ্গল বার রাতে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের করোনা শনাক্ত করণ ল্যাব সুত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
২৪ নতুন করে ১০২ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় ফরিদপুরে করোনা ভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৯৫২জন।
নতুন শনাক্তের মধ্যে রয়েছে র‌্যাব-৮এর আটজন সদস্য। এছাড়া রযেছে ছয়জন পুলিশ সদস্য, গ্রামীণ ব্যাংকেরকর্মী, কৃষি কার্যালয়ের কর্মী, উপজেলা কার্যালয়ে কর্মরত সদস্য।
ফরিদপুরে নতুন করে যে ১০২ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে ফরিদপুর সদরে ৪৩ জন, ভাঙ্গা ও বোয়ালমারী উপজেলায় ১৪ জন করে, সালথায় ১০ জন, মধুখালীতে ৯ জন, আলফাডাঙ্গায় ৬ জন, নগরকান্দায় ৩ জন, সদরপুরে ২ জন এবং চরভদ্রাসনে ১ জন।নতুন করে সনাক্তদের মধ্যে ২৩ জন নারী ও ৭৯জনপুরুষ।
ফরিদপুরের করোনা শনাক্ত করণ ল্যাব সূত্রে জানা গেছে মঙ্গলবার ফরিদপুর ও গোপালগঞ্জের মোট ৩৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করাহয়। মোট পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে ১৪৬জনের। এর মধ্যে ফরিদপুরে তিনজন পুরাতনসহ পুরনোসহ ১০৫ জন, গোপালগঞ্জে৩০ জন, রাজবাড়ীর ২ জন, পটুয়াখালীর ৩ জন, মাদারীপুরে ২ জন, শরীয়তপুর, পাবনা ও মাগুরার ১ জন করে।
মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত ফরিদপুরে মোট শনাক্ত ৯৫২ জনের মধ্যে ফরিদপুর সদরে ২৬৯জন, ভাঙ্গায় ২২৩জন, বোয়ালমারীতে ১৪৯জন, চরভদ্রাসন ৬৩, সদরপুরে ৬৪ জন, নগরকান্দায় ৬১ জন, আলফাডাঙ্গায় ৪৫, সালথায় ৪৬ জন এবং মধুখালীতে ৩২ জন রয়েছেন।
ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ফরিদপুরের সার্বিক করোনা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। আমাদের এ সংকট মোকাবিলায় নতুন করে ভাবতে হচ্ছে। ইতিমধ্যে ভাঙ্গা পুরোপুরি লকডাউন করা হয়েছে। ফরিদপুর পৌর এলাকায় বাজারের সময়সূচি পরিবর্তন করা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় যাযা প্রয়োজন তা করা হবে।
ফরিদপুরের সিভিল সার্জন মো. ছিদ্দীকুর রহমান বলেন, আক্রান্তদের আপাতত বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হবে। তবে শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হলে তাদের ফরিদপুরের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে স্থনান্তর করা হবে।

Leave a Reply