ফরিদপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয়ের ৪৬তম বার্ষিকী পালিত ॥ভয়েস অব ফরিদপুর

ভয়েস অব ফরিদপুর রির্পোট ॥
যথাযোগ্য মর্যাদা ও উৎসবমুখর পরিবেশে আজ ১৬ ডিসেম্বর শনিবার নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে ফরিদপুরে উদযাপিত হয়েছে বিজয়ের ৪৬তম বার্ষিকী ।
সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ৩১বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের সূচনা হয়। ভোরে সরকারি ও বেসরকারি ভবনশীর্ষে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।
সকাল আটটার দিকে শহরের গোয়ালচামট এলাকার পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের নাম সম্বলিত স্মৃতিফলকে জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, সিপিবি, প্রথম আলো বন্ধুসভা, মহিলা পরিষদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এর আগে শহীদদের স্মরণে এক মিনিটি নিরবতা পালন করা হয়।
পরে বিজয় শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি বিভিন্ন সড়ক ঘুরে শহরের শেখ জামাল স্টেডিয়ামে যায়। সেখানে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের গণকবর জিয়ারত করা হয়। সাড়ে নয়টার দিকে স্টেডিয়ামে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও আনুষ্ঠানিক সালাম গ্রহণ করেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া। এসময় পুলিশ সুপার (ভারপ্রাপ্ত) জামাল পাশা উপস্থিত ছিলেন। পরে পুলিশ-আনসার-ভিডিপিসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কুচকাওয়াজ ও ডিসপ্লে¬ প্রদর্শন করা হয়।
বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কবি জসীমউদ্দীন হল মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সন্ধ্যায় ওই মিলনায়তনে বিজয় সংগীতের আয়োজন করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি।
জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। বিএনপির উদ্যোগে বিজয় শোভাযাত্রা বের করা হয়। বিকেলে স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসক একাদশ ও পৌরসভা একাদশের মধ্যে প্রিিত ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
বিজয় দিবস উপলক্ষে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক চলচ্চিত্র প্রর্দশনী, বাদ্য পরিবেশন ও গুরুত্বপূর্ণ ভবনসমূহ আলোকসজ্জা করা হয়।

Leave a Reply