ফরিদপুরে সামজসেবার অনুদান প্রদান অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ॥ বর্তমান সরকার সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে চলেছে

ভয়েস অব ফরিদপুর রির্পোট ঃ
স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন এমপি বলেছেন, ‘বর্তমান সরকার সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে চলছে। মানুষের জীবনমান উন্নয়নে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। যার কারণে আমরা আজ নিজেদের পায়ে দাঁড়াতে শিখেছি।
মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত অভিষ্ঠ লক্ষ্যে পৌঁছতে অনেক কাজ করতে হবে। উন্নয়নের এ মহাসড়কে কাজের অন্ত নাই। আমরা যে কাজ শুরু করেছি তা শেষ করতে হলে সবাইকে সম্মিলিতভাবে নিবেদিত প্রাণ হয়ে কাজ করে যেতে হবে। তাই আসুন সবাই দেশের উন্নয়নের স্বার্থে ঐক্যবদ্ধ হই। বিশ্ব দরবারের বাংলাদেশকে উন্নত দেশ হিসেবে গড়ে তোলার কাজে অংশ নিই এবং আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে পুনরায় নির্বাচিত করার অঙ্গীকার করি।’
শুক্রবার বেলা ১২টায় ফরিদপুরে কবি জসিম উদ্দীন হলে সমাজসেবা কতৃক বিধবা, বয়স্ক এবং প্রতিবন্ধিদের অনুদানের চেক বিতরণ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, ‘ফরিদপুরের মানুষকে প্রধানমন্ত্রী অনেক ভালোবাসেন বলেই কুমার নদ খননে ২৬০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। এছাড়াও তিনি (প্রধানমন্ত্রী) এই জেলায় সামগ্রিক উন্নয়নে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন, যা অতীতের কোনো সরকার করেনি।’
তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘নির্বাচন আমাদের সন্নিকটে। এখন থেকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার কাজ করতে হবে। সাধারণ মানুষকে বোঝাতে হবে সরকারে উন্নয়নের কথা।’
মন্ত্রী বলেন, বিএনপি নেত্রী মামলার ভয়ে এখন বিদেশে পালিয়েছে। বিএনপি নেত্রী নিজেই একজন দুর্নীতিগ্রস্থ। বিএনপি অনাথের টাকা মেরে খায়। তার স্বামীর নামে জিয়া অরফানেজ মামলায় তিনি শতবার হাজিরা দিতে গেছেন। তার ছেলে তারেক রহমান একজন সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামী, জেলের ভয়তে বিদেশে গিয়ে পালিয়ে আছে।
মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ মামলা হামলায় ভয় পায় না। আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক ভাবে শক্ত আবস্থানে আছে। আওয়ামী লীগ রাস্তায় নেমে রাজনীতি করে। আমরা সকলে বঙ্গবন্ধুর সৈনিক।
অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর, সমাজসেবা উপ-পরিচালক এ এস এম আলী আহসান, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মতিউর রহমান।
এসময় অনুদান গ্রহিতার মধ্যে মাচ্চর ইউনিয়নের বিধবা তৃপ্তি রানী কর্মকার, অম্বিকাপুর ইউনিয়নের প্রতিবন্ধি জামাল মৃধা, বয়স্ক ভাতা গেরদা ইউনিয়নের সিকিম আলী মল্লিক বক্তব্য রাখেন।
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) পূরোবী গোলজারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা পিপিএম, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এ্যাডঃ সুবল চন্দ্র সাহা প্রমূখ।

Leave a Reply