ফরিদপুর টাউন থিয়েটারের নাট্য উৎসবের উদ্বোধন কালে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ‘সংস্কৃতি ও কৃষ্টি কোন দেশের সীমানা মানে না’


স্টাফ রিপোর্টার ঃ
স্থানীয় সরকার পল্লি উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, সংস্কৃতি ও কৃষ্টিই মানষের নিজস্বতা, মানুষের ঠিকানা, প্রকৃত পরিচয় । এ সংস্কৃতি ও কৃষ্টি কোন দেশের সীমানা মানে না। এর মধ্যে কোন রাজরীতি থাকতে পারে না। দেশ থেকে সাম্প্রদায়িকতার বিষ উৎপাটন করতে সংস্কৃতি চর্চার কোন বিকল্প নেই।
প্রাচীনতম সংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ফরিদপুর টাউন থিয়েটার ১৪৩ বছরপূর্তি উপলক্ষে সপ্তাহব্যাপী নাট্য উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দিতে গিয়ে এ কথা বলেন মন্ত্রী। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ফরিদপুর টাউন থিয়েটার মিলতায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
স্থানীয় সরকার মন্ত্রী আরও বলেন, মানুষের সাথে অন্য প্রাণির প্রার্থক্য এই কারনে যে শুধুমাত্র মানুষই সংস্কৃতি লালন করে, ধারণ করে এবং পালন করে। তিনি বলেন, অন্যা প্রাণিদের শরীরের ক্ষুধা মিটলেই চলে, কিন্তু মানুষের শরীরের ক্ষুধার পাশাপাশি মনের ক্ষুধাও মেটাতে হয়।
টাউন থিয়েটারের সভাপতি ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়ার সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, পশ্চিমবঙ্গের সাবেক এমএলএ জীবন কৃষ্ণ সাহা, ফরিদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেসাম হোসেন ওরফে বাবর, ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা, উৎসব কমিটির আহ্বায়ক সুবল চন্দ্র সাহা, টাউন থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত দাস প্রমুখ।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে টাউন থিয়েটারের দুই প্রবীণ সদস্য জগদীশ চন্দ্র ঘোষ ও সাঈদ আলী খানকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।
এর আগে জাতীয় সংগীতের সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে এ উৎসবের উদ্বোধন করবেন টাউন থিয়েটারের প্রধান পৃষ্ঠোপোষক স্থানীয় সরকার পল্লি উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন। এসময় সংগঠনের পতাকা উত্তোলন করেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক উম্মে সামলমা তানজিয়া ও উৎসবের পতাকা উত্তোলন করেন উৎসব কমিটির আহ্বায়ক সুবল চন্দ্র সাহা।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বেলুন উড়ানো হয় এবং পায়রা অবমুক্ত  করা হয়। পওে ‘আগুনের পরশ মনি ছোয়াও প্রাণে..’ গানের সাথে সাথে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জলন করেন মন্ত্রী ও জেলা প্রশাসক। এর আগে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়।
‘নাট্যচর্চা রুখবেই জঙ্গীবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা’-এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে শনিবার ১৫ এপ্রিল থেকে এ উৎসব শুরু হয়ে শেষ হবে ২১ এপ্রিল শুক্রবার।
এ নাট্য উৎসবে ভারত, যশোর, ঢাকা, রাজবাড়ীর ও ফরিদপুরের নয়টি নাট্যদল নাটক পরিবেশন করবে টাউন থিয়েটারের নিজস্ব মঞ্চে। প্রতিদিন সন্ধ্যা সাতটা থেকে নাটক শুরু হবে।
আজ  সন্ধ্যায় ভারতের আশোকনগর অন্বেষা’র শুক সারি কথা নাটকটি দিয়ে শুরু হয় নাট্য উৎসব।

Leave a Reply