মানুষের ভালোবাসা আর শ্রদ্ধায় চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাবুবুর রহমান খান

ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ॥হাজার হাজার মানুষের ভালোবাসা আর শ্রদ্ধায় আলীপুর কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন ফরিদপুরের বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, সমাজসেবক, ব্যবসায়ী, ক্রীড়া সংগঠক ও বীরমুক্তিযোদ্ধা মাহবুবুর রহমান খান। বুধবার বাদ জোহুর আলীপুর গোরস্থান জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাবুবুর রহমান খানের প্রতি রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় গার্ড অব অনার প্রদানের পর সর্বস্তরের মানুষ এই বীর সন্তানের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে।
প্রথমে তার কফিনে পুস্পমাল্য অপর্ন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন । এরপর জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, উপজেলা প্রশাসন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, ফরিদপুর প্রেসক্লাব ,ন্যাশনাল ব্যাংক লিঃ, ফরিদপুর ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি, রেস্তোরা মালিক সমিতি শহিদ সুফী ক্লাব, জেলা ক্রীড়া সংস্থা, বিএমএ,আরোগ্য সদন প্রাঃ হাসপাতাল,ফরিদপুর ডায়াবেটিক সমিতিসহ ফরিদপুরের বিভিন্ন সামাজিক,সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো তার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে।
জানাজার পূর্বে মরহুমের পুত্র তাজবীর খান রিজেন্ট, ছোট ভাই কাবুল খান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ ফারুক হোসেন বক্তব্য রাখেন। এছাড়াও সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের পক্ষে শোক বার্তা পাঠ করেন এ এফ এম কাইয়ুম জঙ্গি। পরে নামাজে জানাজা শেষে আলীপুর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।
উল্লেখ্য,বীর মুক্তিযোদ্ধা,ফরিদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক অর্থ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান খান করোনায় আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহে রাজিউন)। তিনি গত ২৪ আগস্ট থেকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই ১৫ সেপ্টেম্বর সকাল ৮ টার দিকে সময় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। দীর্ঘ ২১ দিন করোনাভাইরাসের সাথে যুদ্ধ করে অবশেষে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান তিনি। মৃত্যুকালে ১ পুত্র, ১ কন্যা, স্ত্রীসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন,গুণগাহী ও রাজনৈতিক শুভাকাংখী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুতে ফরিদপুরের সর্ব মহলে শোকের ছায়া নেমে আসে।

Leave a Reply