সালথায় এক বছরে ১৯ খুন: সাংবাদিকের বাড়িসহ শতশত বাড়িঘর ভাংচুর-লুটপাট

সালথা প্রতিনিধি ঃ
সম্প্রতি গত এক বছরে সালথায় ১৯ জনকে জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নানা ঘটনাকে কেন্দ্র করে এসব হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটেছে। সালথা প্রেসক্লাবের সভাপতি সেলিম মোল্যা, সাবেক সাধারন সম্পাদক এম কিউ হুসাইন বুলবুল ও সহ-সভাপতি আবু নাসের হুসাইনের উপর হামলা করা হয়। অন্যদিকে গত ৯ফেব্রুয়ারী সালথা প্রেসক্লাবের বর্তমান সাধারন সম্পাদক, দৈনিক ইত্তেফাক ও ভৈারের প্রত্যাশার সালথা প্রতিনিধি নুরুল ইসলাম প্রাণনাশের হুমকি দেয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ফারুকুজ্জামান ফকির মিয়া। গত এক বছরে এসব হত্যাকা- ও হামলা-হুমকি ছাড়াও সংঘর্ষের ঘটনায় আহত হয়েছেন কয়েক হাজার সাধারন মানুষ। পঙ্গু হয়ে এখনো বিছানায় পড়ে আছেন কয়েক জন। ভাংচুর-লুটপাট করা হয়েছে হাজারও বাড়িঘর। বর্তমানে সংঘর্ষ বা কারো উপর ক্ষোভ তার বাড়িঘরগুলো টার্গেট করা হচ্ছে। এমন একটি ভয়ংকর এলাকায় চাকুরী করতে এসে ভয়ে অনেকেই বদলি হয়ে অন্যস্থানে চলে গেছেন। অনেক সরকারি কর্মকর্তা ও সংবাদকর্মীরা তাদের দায়িত্ব পালনকালে এখানে হামলার শিকার  হয়েছেন। রাজনৈতিক নেতাদের ইন্দনেই মুলত বেশির ভাগ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
এ বছরে যারা খুন হয়েছে তারা হলেন, কলেজ ছাত্র আবু তালেব (২৩), আবুল হোসেন (২৫), হারুন শেখ (৩০), জাবেদ আলী শেখ (৫০), রুকু শেখ (৩৫), রুহুল আমিন (২৫), র‌্যাব সদস্য বকুল মাতুব্বর (৪০), নিরোধ চন্দ্র শিকদার (৫০), স্কুল শিক্ষক বেলায়েত হোসেন দুলাল (৪৫), হারুন মীর (৭০), ভ্যান চালক হাসান সরদার (৪০), কৃষক শুকুর মাতুব্বর (৫০), মতিয়ার মাতুব্বর (৬০), আওয়ামী লীগ নেতা  হাজী তেহারদ্দিন মাতুব্বর (৫৫), গৃহবধু লিপি বেগম (৪৫), আলেজকান খাতুন (৭০), রিশমা বেগম (২২), কাঠ ব্যবসায়ী মো. এসকেন সরদার (৪৫)।

Leave a Reply