১৫ মার্চ সিটি ব্যাংকের পরিচালক রুবেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে দুদক

অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক : পারটেক্স গ্রুপের পরিচালক ও সিটি ব্যাংকের পরিচালক আশফাক আজিজ রুবেলকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তাকে দুদকের ডাকে আগামী ১৫ মার্চ তাকে হাজির হতে হবে। দুদকের তদন্ত কর্মকর্তা মির্জা জাহিদুল আলম  রুবেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন। এর আগে তার আরেক ভাই শওকত আজিজ রাসেলকে গ্রেফতার করে দুদক। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারা প্রভাব খাটিয়ে রাজউকের কাছ থেকে ২০ কাটার দুটি প্লট নিয়েছেন। এই প্লট প্রদানের ক্ষেত্রে রাজউকও অনিয়ম করেছে। এই অভিযোগ ৮ ফেব্রুয়ারি ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্লট নেওয়ার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় তারা দুইভাই ছাড়া রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যান ইকবাল উদ্দিন চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। তাকে গ্রেফতারও করা হয়।
এদিকে রুবেলকে দুদক তলব করে পাঠালেও এখনও পর্যন্ত তিনি কোন ব্যবস্থা নেননি। কিংবা কিছু জানাননি তদন্ত কর্মকর্তাকে। কিংবা কোন সময়েরও আবেদন করেননি। এই কারণে দুদক আশা করছে তিনি ওই দিন দুদকে যথাসময়ে উপস্থিত হয়ে প্লট বরাদ্দের বিষয়ে তথ্য প্রদান করে মামলার তদন্তে সহায়তা করবেন। এদিকে অনিয়ম করে পূর্বাচল আবাসিক প্রকল্পে ১০ কাঠা করে দুইটি প্লট বরাদ্দ নেয়ার অভিযোগে দুদক মামলা করার পর পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ হাশেমের ছেলে ও ওই গ্রুপের পরিচালক শওকত আজিজ রাসেলকে গ্রেফতার করে দুদক। পরে তিনি জামিন লাভ করেন। এখন আপিল বিভাগও তার জামিন বহাল রেখেছে। প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে তিন সদস্যের আপিল বেঞ্চ তার জামিল বহালের আদেশ দেন রবিবার। ২৮ ফেব্রুয়ারি বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণ দেবনাথের বেঞ্চ শওকত আজিজকে তিন মাসের জামিন দেন। দুদক ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করে।
তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, শওকত আজিজ ও আশফাক আজিজের নামে রাজধানীর পূর্বাচলে ১০ কাঠা করে ২০ কাঠার দুটি প্লট রয়েছে। ওই প্লট বরাদ্দ নেয়ার সময় তারা অনিয়ম করিয়েছেন। এবং প্রভাব খাটিয়েছেন।  গত ৮ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজধানীর মতিঝিল থানায় মামলাটি করে দুদক। মামলায়  রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক সচিব ইকবাল উদ্দিন চৌধুরী, শওকত আজিজ এবং তার ভাই রুবেল আজিজ ও রাজউকের কয়েকজন বোর্ড সদস্যকে আসামী করা হয়। ওই মামলার পর ৯ ফেব্রায়ারি  শওকত আজিজকে দুদকের টিম গ্রেফতার করে। এর পর পরই রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যান সাবেক সচিব ইকবালউদ্দিন চৌধুরীকেও ঢাকার পরীবাগ গ্রেফতার করে। ইকবালউদ্দিন চৌধুরী ২০০১ থেকে ২০০৪ পর্যন্ত রাজউকের চেয়ারম্যান ছিলেন। শওকত আজিজ রাসেল ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের (ইউসিবিএল) পরিচালক, আম্বার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক। আর তার ভাই রুবেল সিটি ব্যাংকের পরিচালক। তাদের বিরুদ্ধে প্লট বরাদ্দের অনিয়মের বাইরে এখনও কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি যে তাদের সম্পদের বিষয়ে নতুন করে তদন্ত করা হবে কিনা?
দুদকের তদন্ত কর্মকর্তা রুবেলের কাছে প্লট বরাদ্দে তিনি প্রভাব খাটিয়েছেন ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্লট নিয়েছে এই অভিযোগের প্রমাণের ব্যাপারে তার সম্পর্কে যেসব অভিযোগ রয়েছে সেই ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারেন। তদন্ত শেষে তদন্ত কর্মকর্তা রিপোর্ট প্রদান করবেন।

Leave a Reply