ফরিদপুরের ব্র্যাকের যৌন হয়রানি নির্মূলকরণে সম্মিলিত সামাজিক আন্দেলন গড়ে তোলার লক্ষ্যেসাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

 

স্টাফ রিপোর্টার ঃ
ব্র্যাকের জেন্ডার জাস্টিস অ্যান্ড ডাইভারসিটি কর্মসূচির মেয়েদের জন্য নিরাপদ নাগরিকত্ব-মেজনিনের উদ্যোগে যৌন হয়রানি নির্মূলকরণে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার লক্ষ্যে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়  মঙ্গলবার ২৫এপ্রিল সকাল ১০.০০ টায় ফরিদপুর এনজিও ফোরাম-এর আঞ্চলিক মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভার মূল উদ্দেশ্য ছিল যৌনহয়রানি বিষয়ে সাংবাদিকদের সংবেদনশীলতা জোরদার করা এবং যৌন হয়রানি নির্মূলকরণে সাংবাদিকদের কার্যকর ভূমিকা চিহ্নিতকরা।

মতবিনিময় সভায় আলোচকবৃন্দ দৃঢ়তার সাথে বলেন, ইভটিজিং স্পষ্টতই যৌনহয়রানি। এরমাধ্যমে নারীর মৌলিক মানবাধিকার যেমন-চলাফেরার অধিকার, শিক্ষার অধিকার সর্বোপরি বেঁচে থাকার অধিকার ক্ষুণœ হয় যা সংবিধানের ২৮(২) অনুচ্ছেদের পরিপন্থী।

সভায় মূল উপস্থাপনায় যৌনহয়রানি নির্মূলকরণে সম্মিলিত সামাজিক আন্দেলন গড়ে তোলার লক্ষ্যে মিডিয়ার ভূমিকা ও করনীয় শীর্ষক আলোচনায় মেজনিন কর্মসূচির সিনিয়র সেক্টর স্পেশালিষ্ট কাজী শাহানা আক্তার বলেন, গণমাধ্যমের ইতিবাচক ভূমিকার ফলে গণ-জাগরণ তৈরি হচ্ছেএবং যৌনহয়রানির বিরুদ্ধে ক্যাম্পেইন/প্রচারাভিযান জোরদার হচ্ছে। কিন্তু  অনেক সময় অসংবেদনশীল সংবাদের মাধ্যমে নারী সম্পর্কিত প্রথাগত ধারণাকে উপস্থাপন করা হয়। কোন কোন ক্ষেত্রে প্রতিবেদনে নির্যাতনের শিকার নারীর নাম ও ছবি না থাকলেও ঘটনা বর্ণনায় বিস্তারিত ঠিকানা দেয়া হয়এবং নেতিবাচক ভাবে ঘটনা উপস্থাপনের ফলে ভিকটিমের ব্যক্তিগত ও সামাজিক সম্মান ক্ষুণœ হয়। তিনি সাংবাদিকদের প্রতিবেদনে নারী অধিকার ও সম্মান সমুন্নত থাকে এমন শব্দ ব্যবহার করা, নারী নির্যাতন সংক্রান্ত ফলোআপ রিপোর্টিং করা, নাগরিক সাংবাদিকতার মাধ্যমে নির্যাতনের ঘটনা ও যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে সামাজিক ও ব্যক্তিগত উদ্যোগসমূহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় তুলে ধরার আহ্বান জানান।
সভায় উপস্থিত ছিলেন , ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসুজির আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক সাজ্জাদুজ্জামান চৌধুরি,লার্নি ম্যানেজার মনিরুজ্জমান,ফরিদপুর  প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল ইসলাম পিকুল, মেজনিন কর্মসূচির জুনিয়র সেক্টর স্পেশালিষ্ট পিন্টু মন্ডল।

Leave a Reply