জৈব সার জমির প্রাণ ॥ ফরিদপুরে কৃষকদের সাথে প্রাকটিক্যাল এ্যাকশন এর সংলাপ.VOICE OF FARIDPUR

মাহবুব পিয়াল, ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ॥
জৈব সার জমির প্রাণ, জৈব সার দিয়ে উৎপন্ন ফসল বিষমুক্ত হয়, জৈব সার জমিতে পানির চাহিদা মেটায়, জৈব সার দিয়ে উৎপন্ন ফসল সতেজ ও পুষ্টিকর হয়, জৈব সার মাটির গুনগত মান বজায় রাখে ।
জৈব সার নিয়ে এ সার ব্যবহারকারী ও এ সার উৎপাদনকারী কৃষকদের নিয়ে এ কৃষি সংলাপে এ মতামত ব্যক্ত করেছেন অংশ নেওয়া কৃষকগণ।
সোমবার (৬মে) সকাল ১০টার দিকে ফরিদপুর শহরের বদরপুরস্থ নিজ কার্যালয়ে এ সভার আয়োজন করে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা প্রাকটিক্যাল এ্যাকশন বাংলাদেশ এর ফরিদপুর জেলা শাখা। দিনব্যাপী এ আয়োজনে কৃষি সংলাপ ছাড়াও কৃষক মাঠ ক্ষেত্র পরিদর্শনের আযোজন করা হয়।
‘জলবায়ু শীতল রাখুন, কম্পোস্ট সার ব্যবহার করুণ’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে গত ৫ মে থেকে ১ মে পর্যন্ত আন্তর্জাতিক আন্তর্জাতিক কম্পোষ্ট সচেতনতা (আইসিএডব্লিউ) সপ্তাহ পালন উপলক্ষে কৃষকদের নিয়ে এ মত বিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।
এ কৃষি সংলাপে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলাম, মো. মুজাহিদুল ইসলাম এবং মো. কামরুজ্জামান । অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন প্রাকটিক্যাল এ্যাকশন বাংলাদেশের সিনিয়র স্পেশালিষ্ট ফুড সিকিউরিটি এন্ড নিউট্রিশন ইনক্লুসিভ এগ্রিকালচার প্রোগ্রাম হাবিবুর রহমান।
স্বাগত বক্তব্য দেন প্রাকটিক্যাল এ্যাকশনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাও স্টেশন ইনচাজ ধীমান হালদার ।
মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন, প্রাকটিক্যাল এ্যাকশন মার্কেট প্রমোশন কর্মকর্তা বুলবুল হোসেন, সোস্যাল ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (এসডিসি) উপ-পরিচালক হামিদুল খন্দকার, এবং শোলাকুন্ডো, মল্লিকপুর, পিয়রপুর ও ফরিদপুর সদর উপজেলার অন্যান্য গ্রাম থেকে আগত ২০ জন কৃষক।
এ সংলাপে অংশগ্রহণকারী কৃষকরা তাদের কম্পোষ্ট তৈরী, ব্যবহার, কেনা বেচা এবং আগত সমস্যা, সমাধান ইত্যাদি বিষয়ের উপর বাস্তব অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিয়ে মতামত ব্যাক্ত করেন।
সংলাপে অংশগ্রহণকারীরা জানান, কম্পোষ্টিং এর মাধ্যমে, বায়োমন্ডল থেকে উদ্ভিদ যে কার্বন শোষণ করে তা আবার মাটিতে ফিরিয়ে আনে। এছাড়াও কম্পোষ্ট মাটিতে প্রয়োগে খরা এবং রোগযুক্ত পুষ্টির প্রতিরোধ করে, মাটির কর্মদক্ষতা বাড়ায় এবং বাতাসে নাইট্রাস অক্সাইড ত্যাগ হ্রাস করে।
প্রসঙ্গত মার্কিন কম্পোস্টিং কাউন্সিলের নেতৃত্বাধীন আইসিএডব্লিউ মে মাসের প্রথম সপ্তাহে প্রতি বছর বিশ^ব্যাপী উদযাপন করে আসছে। ১৯৯৫ সালের কানাডায় প্রথম এ সপ্তাহ পালন করা হয়।

Leave a Reply