দুর্গাপূজা উপলক্ষে ফরিদপুরে ২১ শিশুকে নতুন পোশাক দিল প্রথম আলো বন্ধুসভা

ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ।। সনাতন ধর্মালম্বীদের সর্ব বৃহৎ ধর্মীয় পার্বন শারদীয়া দুর্গোৎসবকে সামনে রেখে ফরিদপুরে অসহায় দরিদ্র পরিবারের ২১ শিশুকে নতুন পোশাক দিল প্রথম আলো বন্ধুসভা। বুধবার বেরা ১১টার দিকে শহরের চর টেপাখোলা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে শিশুদের হাতে এ পোশাক তুলে দেওয়া হয়।
ফরিদপুর প্রথম আলো বন্ধুসভার সাধারণ সম্পাদক মনিক কু-ু জানান, শহরের টেপাখোলা ফরিদাবাদ এলাকায় জেলেদের বসতি যা স্থানীয় ভাবে বিন্দু পাড়া হিসেবে সেখানকার হত দরিদ্র ২১টি পরিবারের এক বছর থেকে ১০ বছর পর্যন্ত ২১টি শিশুকে নতুন জামা কাপড় তুলে দেওয়া হয়। তিনি বলেন, এর মধ্যে ১০টি মেয়ে শিশু ও ১১টি ছেলে শিশু রয়েছে। এদের মধ্যে দুইটি শিশু প্রতিবন্ধী।
পূজার আগে নতুন পোশাক পেয়ে খুশি চিরঞ্জিৎ বিশ্বাস (৯) । বাবা-মা হারা চিরঞ্জিৎ মেসো প্রফুল্ল বিশ্বাসের পরিবারে বড় হচ্ছে। সে স্থানীয় একটি প্রাথমিব বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী। চিরঞ্জিৎ বলেন, নতুন এই পোশাক পড়ে পূজায় ঠাকুর দেখতে বের হবো। আমার খুব ভালো লাগছে।
নতুন পোমাক পেয়ে খুশী শিশু শ্রেণির শিক্ষার্থী পাঁচ বছরের পুষ্প বিশ্বস। সে জানায়, তার বাবা এ পোশাক পড়ে ঘুরবো। বাবা রতন বিশ্বাস মাছ ব্যবসা করেন । বাবা নতুন জামা কিনে দেয়নি, বরেছে টাকা নাই।
পাঁচ বছরের শিশু রুদ্র বিশ্বাসের মা চন্দনা বিশ্বাস জানান, পোলাপানরে তো কেউ দেয় না। পোশাক পেয়ে পোলাপান খুশী হয়েছে। যাওয়ার সময় গ্রামের লোকদের দেখাতে দেখাতে যাবে। ওদের আনন্দ দেখে আমরাও খুশী।
উপ সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম গোলাম রসুল জানান, প্রতিবছর ফরিদপুর প্রথম আলো বন্ধুসভা ঈদ উৎসবের পাশাপাশি শারদীয়া দুর্গোৎসবেও হত দরিদ্র দুস্ত পরিবারের শিশুদের হাতে নতুন পোশাক তুলে দেয়। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। আমরা বন্ধুসভার সদস্যরা নিজেরা চাঁদা দিয়ে এক পোশাকগুলি দিয়ে থাকি।
প্রথম আলো বন্ধুসভার এ কাজে কুপন বিতরণ থেকে শুরু করে শিশুদের হাতে পোষাক তুলে দেওয়ার ব্যাপারে সাহায্য করেছে ওই এলাকার দুই তরুণ মো. আশরাফুল মন্ডল আশীক (২০) ও মো. আবু সাইদ শেখ (২২)।

Leave a Reply