ফরিদপুরে করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা ৫৫৫ ॥ নতুন করে ৪৮ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত

মাহবুব পিয়াল,ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ॥ ফরিদপুরে করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা এখন ৫৫৫। গত ২৪ ঘন্টায় ফরিদপুরে সাত পুলিশ সদস্য ও তিন ব্যাংক কর্মীসহ নতুন করে আরও ৪৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে ফরিদপুর জেলায় করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৫৫ জন।
সোমবার রাতে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব সুত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
ফরিদপুরে নতুন করে যে ৪৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে ফরিদপুর সদরে ১০ জন, বোয়ালমারীতে ৯ জন, সদরপুর ও ভাঙ্গায় ৮ জন করে, চরভদ্রাসনে ৫ জন, আলফাডাঙ্গায় ৩ জন ও নগরকান্দায় ২ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১০ জন নারী ও ৩৮ জন পুরুষ।
তবে এ প্রতিবেদন প্রকােেশর আগেই করোনাবাইরাস শনাক্ত ৭৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ মারা গেছেন। গত সোমবার সন্ধ্যা ৬টার তিনি ফরিদপুর জেনালের হাসপাতালে মারা যান।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চরভদ্রাসন উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেসমিন সুলতানা বলেন, সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে গাজীরটেকস্থ ওই বৃদ্ধের পারবারিক শ্মশানে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।
এই বৃদ্ধকে নিয়ে ফরিদপুরে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে তিনজন মুক্তিযোদ্ধাসহ মৃত্যু হয়েছে নয়জনের। এছাড়া ফরিদপুরের বাসিন্দা মধুখালীর এক সাবেক সেনা সদস্য এবং সালথার এক পুলিশ সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় মারা গেছেন। তবে তাদের দুজনের মৃতদেহ ফরিদপুরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে দাফন করা হয়েছে।

গত সোমবার ফরিদপুরে নতুন করে যে ৪৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে ফরিদপুরে রয়েছেন পাঁচ পুলিশ সদস্য। এর মধ্যে তিনজন ভাঙ্গা থানায় কর্মরত এবং একজন সিআইডি ও অপরজন ফরিদপুর পুলিশ লাইনস এ কর্মরত।
নতুন করে আক্রান্তের মধ্যে ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার সোনালী ব্যাংক ও জনতা ব্যাংকের তিনজন কর্মী রয়েছেন।
ফরিদপুরে নতুন করে যে ৪৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তার মধ্যে ৫ থেকে ২০ বছর বয়সী রয়েছে ৮ জন, ৪১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আছেন ১৪ জন এবং ৬০ বছরের উর্ধে আছেন ৬ জন।
ফরিদপুরের করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব সূত্রে জানা গেছে সোমবার ফরিদপুর ও গোপালগঞ্জের মোট ২৮১ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। মোট পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে ৬৯ জনের। এর মধ্যে ফরিদপুরে চারজন পুরনোসহ ৫২জন, মাদারীপুর ও রাজবাড়ীর দুইজন করে, বাগেরহাটের ১ জন এবং গোপালগঞ্জের ১২ জন।
গত সোমবার পর্যন্ত ফরিদপুরে মোট শনাক্ত ৫৫৫ জনের মধ্যে ফরিদপুর সদরে ১৩৪ জন, ভাঙ্গায় ১৩৯ জন, বোয়ালমারীতে ৮৪, নগরকান্দায় ৪৪, চরভদ্রাসনে ৪৮, আলফাডাঙ্গায় ৩৫, সদরপুরে ৩৮, মধুখালীতে ১৬ এবং সালথায় ১৭ জন।
ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ফরিদপুর সদর, বোয়ালমারী, নগরকান্দা, চরভদ্রাসন, ভাঙ্গা, সালথা, আলফাডাঙ্গা ও সদরপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে যে ৪৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের প্রত্যেকের বাড়ি বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।
ফরিদপুরের সিভিল সার্জন মো. ছিদ্দীকুর রহমান বলেন, আক্রান্তদের আপাতত বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হবে। তবে শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হলে তাদের ফরিদপুরের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে স্থনান্তর করা হবে।

Leave a Reply