মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:৫৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ভাজন ডাঙ্গা যুব সংঘ ফুটবল টুর্নামেন্ট।। টিবির মোড় একাদশ চ্যাম্পিয়ন জসীম মঞ্চে হযরত খাজা মাইনুদ্দিন চিশতী সাংস্কৃতিক শিল্পীগোষ্ঠীর সংগীত পরিবেশন জসীম মঞ্চে আবুল খায়ের বাউলের সংগীত পরিবেশন ফরিদপুরে ২১দিনব্যাপী জসীম পল্লী মেলা শুরু ইমরান হোসেন চৌধুরীর ১৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ জাতির পিতার মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগ  ফরিদপুর ও রাজবাড়ীর কবি সাহিত্যিকদের নিয়ে সাহিত্য বৈঠক।।বর্ণাঢ্য আয়োজন ফরিদপুরে বান্ধবপল্লীর শিশুদের মাঝে নন্দিতা সুরক্ষা শীতবস্ত্র বিতরণ আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে  চন্দ্রপাড়া দরবারের বার্ষিক ওরস শেষ হলো ফরিদপুরে অসহায় ও দুস্থ্য ৬ হাজার মানুষের মাঝে কম্বল বিতরন

ফরিদপুরে চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ এর মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

মাহবুব পিয়াল,ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ :
  • Update Time : শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৭৯ Time View

বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেক মন্ত্রী ও বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ এর ২য় মৃত্যুবার্ষিকী শুক্রবার(৯ ডিসেম্বর) ফরিদপুরে পালিত হয়েছে। ২০২০ সালের এই দিনে তিনি করোনা আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

এ উপলক্ষে শুকবার বাদ ফজর ফরিদপুরের মুসলিম মিশন এতিম খানায় পবিত্র কোরআন শরীফের খতম, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্টিত হয়।বাদ জুম্মা শহরের কমলাপুর ময়েজ মঞ্জিল জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্টিত হয়।মিলাদ,দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন ময়েজ মঞ্জিল জামে মসজিদের খতিব মাওলানা কবির আহমাদ ।

চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ ১৯৪০ সালের ৩ মে তিনি ফরিদপুর জেলার সম্ভ্রান্ত বাঙালি জমিদার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের পিতামহ ছিলেন জমিদার চৌধুরী ময়েজউদ্দীন বিশ্বাস। তাঁর পিতা ইউসুফ আলী চৌধুরী (মোহন মিয়া) ব্রিটিশ ও পাকিস্তান শাসনামলে উপমহাদেশের একজন বিশিষ্ট প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ছিলেন। তাঁর চাচা চৌধুরী আবদুল্লাহ জহিরউদ্দীন (লাল মিয়া) প্রেসিডেন্ট আইয়ুব খানের সরকারে মন্ত্রিসভায় ছিলেন এবং অন্য চাচা এনায়েত হোসেন চৌধুরী পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের সদস্য ছিলেন।

চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ বিএনপি থেকে ১৯৭৯ সালের জাতীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান তাঁকে বৃহত্তর ফরিদপুরের প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদাসম্পন্ন District Development Co- ordinator – DDC হিসেবে নিয়োগ দেন। ১৯৮১ সালে তিনি বিচারপতি আব্দুস সাত্তার সরকারের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯১ সালে তিনি পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মন্ত্রিসভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হন। ১৯৯৬ সালে সংসদ নির্বাচনে তিনি বিজয়ী হন। ২০০১ সালের নির্বাচনেও জয়ী হয়ে তিনি খাদ্য এবং ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী হয়েছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102