ফরিদপুরে নানা আয়োজনে শেখ রাসেল এর ৫৬ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ।। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল এর ৫৬ তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলকুঁড়িদের (এতিম শিশু) সাথে নিয়ে কেক কাটলেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

রোববার (১৮ অক্টোবর) সন্ধ্যায় শহরের শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পূনর্বাসন কেন্দ্রে কেক ও মিষ্টি নিয়ে হাজির হন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। এসময় জেলা প্রশাসককে ফুল দিয়ে বরণ করে নেয় কেন্দ্রের শিশুরা।

‘শেখ হাসিনার হাতটি ধরে পথের শিশু যাবে ঘরে’ স্লোগানের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতেই জেলা প্রশাসক অতুল সরকার শিশুদের সাথে নিয়ে কেক কাটেন। এসময় শিশুদের মুখে কেক ও মিষ্টি তুলে দেন জেলা প্রশাসক। জেলা প্রশাসককে কাছে পেয়ে আনন্দে মেতে ওঠে শিশুরা। পরে শিশুদের মাঝে নতুন পোষাক বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক।

জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, শেখ রাসেলের জন্মদিনে শিশু প্রশিক্ষণ ও পূনর্বাসন কেন্দ্রের শিশুদের সাথে নিয়ে কেক কেটেছি। ওরা এতিম নয়, আজ থেকে আমরা ওদের বলবো ফুলকুঁড়ি।

 

এর আগে বিকালে ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল এর ৫৬ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রোকসানা রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, বনের হিংস্র পশুরা অধিকাংশ সময়ে বাচ্চাদের শিকার করে না, তাদের আঘাত করে না। কিন্তু মানুষের মধ্যে যখন মনুষ্যত্ব হারিয়ে পশুতে রূপান্তরিত হয়, তখন সে পশুর নিয়ামবলীও ভুলে যায়। তারা হয়ে উঠে জঘন্য। সে রকমই কিছু জঘন্য পশুদের হাতে আমরা শেখ রাসেলসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারকে হারিয়েছি।

তিনি আরো বলেন, ইতিহাস সেই জঘন্য বর্বরদের কখনো ক্ষমা করবে না। জেলা প্রশাসক শহীদ শেখ রাসেলসহ পরিবারের সকল শহীদদের জন্য দোয়া কামনা করেন। একই সাথে আজকের শিশুদের আগামী দিনে শেখ রাসেলের স্বপ্ন পূরণের জন্য তৈরী হতে বলেন। ভাল মানুষ হতে বলেন।

Leave a Reply