ভাঙ্গায় মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে ২ ভাইকে কুপিয়ে হত্যা ॥ আটক তিন

মাহবুব পিয়াল,ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ॥ ফরিদপুরের ভাঙ্গায় একটি গ্রামে বিলে জাল দিয়ে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে বিরোধের জের ধরে স্কুলছাত্রসহ ২ ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার (২৪ আগষ্ট) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে ভাঙ্গা উপজেলার নুরুল্লাগঞ্জ ইউনিয়নের হাবিলি গঙ্গাধরদী গ্রামে। নিহতরা হলেন ঐ গ্রামের গিয়াস উদ্দিন মাতুব্বর ওরফে গিয়ান মাতুব্বরের দুই ছেলে শামিম মাতুব্বর (২৭) ও রাকিব মাতুব্বর (১৫)। নিহত রাকিব মাতুব্বর পার্শ¦বর্তী গঙ্গাধরদী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্র। এ ঘটনায় গিয়াস উদ্দিন মাতুব্বরের বড় ছেলে আলী নুর মাতুব্বর (৩৫) ও নাতী ইমন মাতুব্বর (১৩) আহত হয়। তাদেরকে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে ফরিদপুরের পুলিশ সুপার আলীমৃজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অফিযোগে ৩ জনকে আটক করেছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, হাবিলী গঙ্গাধরদী গ্রামের ছদ্দাক মাতুব্বরের সঙ্গে গিয়াস উদ্দিন মাতুব্বরের আগে থেকেই গ্রাম্য দলগত বিরোধ ছিল। গত রবিবার (২৩ আগষ্ট) বিকালে গ্রামের বিলে জাল পেতে মাছ ধরতে যায় গিয়াস উদ্দিন মাতুব্বরের ছোট ছেলে স্কুল ছাত্র রাকিব মাতুব্বর। এ সময় তাকে জাল পাততে বাধা দেয় প্রতিবেশি ছদ্দাক মাতুব্বরের ছেলে জামাল মাতুব্বর ও আবজাল মাতুব্বর। এ নিয়ে ২ পক্ষের মধ্যে কাথা কাটাকাটি ও উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে সোমবার (২৪ আগষ্ট) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ছদ্দাক মাতুব্বর ও তার ছেলেদের নেতৃত্বে প্রতিবেশি গিয়াস উদ্দিন মাতুব্বরের বাড়িতে হামলা হয়। হামলায় রামদা, সড়কি ও ধারালো অস্ত্রদিয়ে কুপিয়ে গিয়াসউদ্দিন মাতুব্বরের পরিবারের ৪জনকে জখম করে প্রতিপক্ষ। গুরুতর আহত শামিম মাতুব্বর (২৭) ও রাকিব মাতুব্বর (১৫) কে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।
ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানান অতিরিক্ত ক্ষরণে তাদের মৃত্যু হয়েছে। তিনি বলেন নিহতদের মাথায় একাধিক কোপের আঘাত রয়েছে।
নিহত দুই জনের পিতা িিগয়াস উদ্দিন মাতুব্বর কান্নায় ভেঙ্গো পড়ে বলেন, আমার চোখের সামনে তরতাজা দুই ছেলেক কুপিয়ে হত্যা করেছে ছত্তাক মাতুব্বর ও তার ছেলেরা। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে এ হত্যার বিচার চাই।
গঙ্গাধরদী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাদেক আলী বলেন, ুনিহত রাকিব মাতুব্বর আমার বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী। তার শ্রেণি রোল ১০।
ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুর রহমান জানান, এ ঘটনার সাথে জড়িত ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। এরা হলো ছদ্দাক মাতুব্বর (৬৫), তার দুই ছেলে সালাম মাতুব্বর (৪০), জামাল মাতুব্বর(৩০)। মামলার প্রস্তুতি চলছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ফরিদপুরের পুলিশ সুপার আলীমুজ্জামান বলেন, এ দুই পক্ষের মধ্যে স্থানীয় দলাদলি ছিল। তবে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করেই এ ঘটনাটি ঘটেছে। হত্যার সাথে জড়িত কেউ ছাড় পাবে না।

Leave a Reply