লাইফ সাপোর্টে সেই মাদ্রাসা ছাত্রী ॥voice of faridpur news

ভয়েস অব ফরিদপুর নিউজ ॥  ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় দগ্ধ মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটনায় তাকে লাইফ সাপোর্টে নিয়েছেন চিকিৎসকরা ।

সোমবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে মেয়েটিকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়েছে। রাত থেকে শ্বাসকষ্ট নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারায় মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়েছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সহকারি অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দীন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, মেয়েটির শরীরের প্রায় ৮০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল। তার শারীরের অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে। ফলে তাকে লাইফ সাপোর্টে নিতে হয়েছে।

বার্ন ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, ভোর থেকে মেয়েটির শ্বাসকষ্ট শুরু হওয়ার পরে ৯ সদস্যের মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্তে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত ; গত ২৭ মার্চ ওই ছাত্রীকে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার নিজ কক্ষে ডেকে নিয়ে অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলা শ্লীলতাহানি করেন অভিযোগে মামলা হয়েছে। ছাত্রীর মায়ের করা মামলায় অধ্যক্ষ এখন কারাগারে। ওই ছাত্রীর ভাইয়ের অভিযোগ, শনিবার মাদ্রাসার প্রশাসনিক ভবনের ছাদে বান্ধবীকে মারধর করা হচ্ছে-এমন খবর পেয়ে সেখানে গিয়েছিলেন ছাত্রীটি। যাওয়ার পরই তাঁকে ঘিরে ধরেন বোরকা পরা চার-পাঁচজন ছাত্রী। তাঁরা শাসাতে থাকেন, অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে কেন  অভিযোগ এনেছেন। জবাবে মেয়েটি বলেছিলেন, তিনি যে অভিযোগ করেছেন, তা সত্য এবং শেষ নিশ্বাস পর্যন্ত তিনি এর প্রতিবাদ করবেন। এরপর ওই ছাত্রীরা কেউ তাঁর হাত, কেউ পা  ধরেন এবং গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন।

Leave a Reply