সদপুরে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের সহায়তায় জমি সংক্রান্ত বিবাদ মিমাংশা

 

লিয়াকত আলী লাবলু ঃ
সদপুরের আকোটেরচর ইউনিয়নের চর রামনগর কাজী গ্রামের মেছের খালাসী ও বাদশার মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত জমি জমা নিয়ে বিরোধের একাধিক শালিসী বৈঠক করে ও সমাধান দিতে ব্যর্থ হয় স্থানীয় শালিশবর্গ পক্ষদ্বয়ের অসহোযোগিতার কারণে । অবশেষে মেছের খালাসী বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন এর সদরপুর শাখায় স্মরণাপন্ন হয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে । সদরপুর কমিশন বিষয়টি জটিল ও কঠিন মনে করে জেলা কমিটির স্মরনাপন্ন হয়। জেলা কমিটি উক্ত বিষয়টি আমলে নিয়ে বাদী ও বিবাদী গণ কে নোটিশের মাধ্যমে শালিশের প্রস্তাব দিলে ২য় পক্ষ দ্বারা প্রথম তারিখের শেষ দিনে শালিশের তারিখ পরিবর্তন করা হয় । অবশেষে গত২৪/০৫/২০১৭ ইং তারিখে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের মাধ্যেমে স্থানীয় গণ্য মাণ্য দের সহযোগিতায় উক্ত বিবাদের স্থায়ী সীমানা নির্ধারণের মাধ্যেমে বিরজমান সমস্যা নিষ্পত্তি করা হয়। ফরিদপুর জেলা মানবাধিকার কমিশনের পক্ষ থেকে দপ্তর সম্পাদক এ.কে আজাদ ও লিয়াকত আলী (লাভলূ) এর নেতৃত্বে ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি উক্ত শালিশে উপস্থিত থেকে শালিম পরিচালনায় সহযোগিতা করেন। উক্ত শালিশের আয়োজন করেন সদরপুর মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান এর নেতৃত্বে আসাদুজ্জামান শওকত সহ-সভাপতি সদরপুর, সফিকুল ইসলাম আজাদ সাধারণ সম্পাদক সদরপুর, লিকল মোল্যা সাংগঠনিক সম্পাদক সদরপুর। এছারাও আরো উপস্থিত ছিলেন কাজী গোলাম রব্বানী ( পান্নু ) সদস্য জেলা পরিষদ, সামসু খান ( সাবেক চেয়ারম্যান চর বিষ্ণুপুর), বজলুর রহমান মৃধা, আব্বাস খালাসী সহ স্থানীয় গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ।

Leave a Reply